হোমিও চিকিৎসকরা কি নামের সামনে ডাঃ লিখতে পারবে ?

ক্যাটাগরি: অন্যান্য | তারিখ: 04/10/18 | No Comment
হোমিও ডাক্তার

হোমিও চিকিৎসকরা কি নামের সামনে ডাঃ লিখতে পারবে ? এই প্রশ্নটি অনেকেই করে থাকে ।বাংলাদেশের মেডিকেল এডুকেশন সম্পর্কে যাদের ধারনা আছে তারা অবশ্য এ প্রশ্ন করবে না । তবে অনেক চিকিৎসক তাঁর প্যাথির বাহিরে অন্য প্যাথির  আইন সম্পর্কে ধারনা না রাখার কারনে এই প্রশ্ন করেন । অনেক সাংবাদিক ভাইয়েরাও এই প্রশ্ন করেন ।

আমাদের মনে রাখতে হবে , আমরা যাই বলবো তা অবশ্যই বিদ্যমান আইনের মধ্যে থেকে বলবো , আমরা এ বিষয়ের আইন না জানলে কাউকে ছোটো করার জন্য বলবো না । কাউকে অপমান করাও অপরাধ ।

অনেকে বলেন , ডাক্তার বা ডাঃ লেখার অধিকার শুধুমাত্র যারা BM&DC থেকে প্রাক্টিস  রেজিস্ট্রেশন পায়  তাদের জন্য । কথা ঠিক , তবে এটা শুধুমাত্র এলোপ্যাথিক চিকিৎসার ক্ষেত্রে । এলোপ্যাথিক সিস্টেমে যারা পড়া লেখা করেন তাদের মধ্যে MBBS ও BDS ছাড়া অন্য কেহ ডাক্তার লিখতে পারবেন না । অনেকে প্যারামেডিকস করে , LMAF বা অন্য কোনো এলোপ্যাথিক কোর্স করে নিজের নামের সাথে ডাক্তার/ডাঃ লিখে এলোপ্যাথিক প্রাক্টিস শুরু করে দেয় যা এলোপ্যাথ আইনে অর্থাৎ BM&DC যাদের নিয়ন্ত্রণ করেন তাদের আইনে অপরাধ । আশাকরি এলোপ্যাথিক আইন বুজতে পেরেছেন ।

এবার আসি হোমিও নিয়ে , হোমিও চিকিৎসকরা BMDC এর আইনে চলে না কারন তারা এলোপ্যাথিক ওষুধ পড়ে না ও এলোপ্যাথিক প্রাক্টিস ও করে না । BMDC এর আইন শুধুমাত্র এলোপ্যাথদের জন্য , অন্য প্যাথির জন্য না । হোমিও চিকিৎসকরা ” বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক প্রাক্টিশনার্স অর্ডিন্যান্স, ১৯৮৩ ( Ordi.No.XLI of 1983 ) ” এই আইন অনুসারে প্রাক্টিস করেন এবং নামের সামনে ডাক্তার লিখে থাকেন ।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিষ্ঠান ” বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ড” যারা হোমিও চিকিৎসকদের ( DHMS ) রেজিস্ট্রেশন প্রদান করেন তারা নামের সামনে ডাঃ শদ্ধটি লিখে দেন । বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথি বোর্ড নামের সামনে ডাঃ লিখে দেওয়ার অর্থই হচ্ছে সরকার নামের সামনে ডাঃ লিখে দিয়েছে ।( তাদের দেওয়া অর্থাৎ সরকারী রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেটের ছবি/অনুলিপি  দেওয়া হলো )

তাই বিদ্যমান আইনে যা থাকুক না কেনো , এটাই হলো হোমিওর আইন । আবারো বলি হোমিও চিকিৎসকরা এলোপ্যাথিক পড়েন না ও চিকিৎসা করেন না । তারা দেশের হোমিও আইনের অধিনে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরকারী সিলেবাসে পরীক্ষা দিয়ে পাশ করে সরকারের কাছ থেকে চিকিৎসা করার জন্য প্রাক্টিস রেজিস্ট্রেশন পেয়ে থাকেন । এটা সম্পুর্ন আলাদা আইন ।

২৪ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮ সালের বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সরকার গেজেট প্রকাশ করে এই আইনের এবং ঐ গেজেটে নামের সামনে ডাঃ শব্দটিও লিখে দেওয়া হয়  ( প্রজ্ঞাপন ২১ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮  ) ।   বর্তমানে এই আইনের অধিনে হোমিও চিকিৎসকগণ প্রাক্টিস করছেন ।

নিম্নে গেজেটের ছবি  দেওয়া হলো ।

তাই হোমিও চিকিৎসকদের নামের সামনে ডাক্তার ডাঃ কেনো লেখে  বা লেখা যাবে না বলার   অর্থ হচ্ছে সরকারী হোমিও আইনকে অবজ্ঞা করা ।

যেদিন   BMDC এলোপ্যাথিক ছাড়াও অন্যপ্যাথির চিকিৎসকদের তাদের অধিনে নিয়ে যাবে ও রেজিষ্ট্রেশন প্রদান করবে তখন হোমিও সহ সকল বিকল্প ধারার চিকিৎসকরা BMDC এর আইন মেনে চলতে বাধ্যথাকবে । . আশাকরি উত্তর পেয়েছেন ।

বিঃদ্রঃ আমি তোমাকে তখনই সন্মান করবো , যখন তুমি আমাকে সন্মান করবে ।

ছবিতে এই রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেটটি অন্য এক ভাইয়ের তাই তাঁর নাম ও ছবি মুছে দিলাম ।

নিচের বাটনগুলো দ্বারা শেয়ার করুন:

ফেইসবুকের মাধ্যমে কমেন্ট করুন

Leave a Reply

avatar
  Subscribe  
Notify of

ফেসবুকে লাইক দিন

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

MD. Faijul Huq youtube subscribe

জনপ্রিয় পোস্টসমূহ

error: Content is protected !!
Dr. Md. Faijul Huq
Dr. Md. Faijul Huq